কে এই কালা পাখি ? ‘ সাদা কালা’ গানের পেছনের অজানা গল্প

নাজিফা তুশি, হাশিম মাহমুদ ও চঞ্চল চৌধুরী

কে এই কালা পাখি ? সাদাকালা গানের পেছনের গল্প অনেকেরই অজানা। সাদা সাদা কালা কালা – গানের জোয়ারে ভাসছে পুরো বাংলাদেশ। শীঘ্রই মুক্তির অপেক্ষায় থাকা হাওয়া ছবির এই গানটি এখন যেন সবার মুখে মুখে। কি আছে এই গানে? গানের বিষয়বস্তুই বা কি ? আর কেই বা এই কালা পাখি ? গানটি গুনগুনিয়ে গাইতে গাইতে এমন প্রশ্ন হয়তো আপনার মাথায়ও ঘুরপাক খেয়েছে। চলুন জেনে নেয়া যাক।

হাওয়াতে সাদাকালা : হাওয়া ছবির পরিচালক মেজবাউর রহমান সুমন নিজে পড়েছেন চারুকলায়। সেখানেই তিনি প্রথম শোনেন হাশিম মাহমুদের গাওয়া ‘ সাদা সাদা কালা কালা ‘ গানটি। যোগাযোগ না থাকায় হাশিম মাহমুদকে খুঁজে পেতেও বেগ পেতে হয়। পরিচালকের ইচ্ছে থাকলেও অসুস্থতার কারণে গানটি সিনেমায় গাইতে পারেননি হাশিম মাহমুদ নিজে। কিন্তু তার পরিবর্তে গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন ‘ আরফান মৃধা শিবলু ‘ অবাক করা বিষয় হলো , এই গানটিতে কোন বাদ্যযন্ত্র ব্যবহার করা হয়নি শুধুমাত্র ‘ খমক ‘ ছাড়া। গানটির সংগীতায়োজন করেছেন ইমন চৌধুরী ও বাজিয়েছেন মিঠুন চক্র। নাজিফা তুশি, চঞ্চল চৌধুরী, শরিফুল ইসলাম রাজ, সোহেল মন্ডল, সুমন আনোয়ার, নাসির উদ্দিন খান, রিজভী রিজু, মাহমুদ হাসান এবং বাবলু বোস অভিনীত এই ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ২৯শে জুলাই। এদিনই রিলিজ পাচ্ছে ‘হাওয়া’। ছবির কাহিনী, সংলাপ ও পরিচালনায় ছিলেন মেজবাউর রহমান সুমন। আর চিত্রনাট্য লিখেছেন সুকর্ণ শাহেদ ধীমান, জাহিন ফারুক আমিন।

গানটি কেন জনপ্রিয় : এখন সময়টা ভীষণ অস্থির। গভীর জীবনবোধ সম্পন্ন গান শোনার মানুষ খুব কম। হাশিম মাহমুদের এই গানে কঠিন শব্দ না থাকলেও একদম সব সহজ শব্দ, সহজ সুর দিয়ে ভীষণ মায়াবী এক সুরেলা জাল সৃষ্টি করেছেন শিল্পী। এই সহজবোধটাই গানটাকে এতো অল্প সময় এতো বেশি মানুষের কাছে ছড়িয়ে দিতে সাহায্য করেছে। গানের কথাগুলোও নিজেদের জীবনের সাথে সবাই মিলিয়ে নিতে পারছে খুব সহজেই। এছাড়াও এখন যেখানে অধিকাংশ গানই মিউজিক নির্ভর। এই গান সেখানে একদমই স্রোতের বিপরীতে হেঁটেছে। খমক ছাড়া আর কোন বাদ্যযন্ত্র সেই অর্থে ব্যবহার না করায় গানটি যে কেউ খুব সহজেই মন খুলে গাইতে পারছে।

কে এই কালা পাখি : এই গানটির গীতিকার ও সুরকার হাশিম মাহমুদ । চারুকলার সংস্কৃতি প্রেমী মানুষদের কাছে অতি পরিচিত মুখ তিনি। কিন্তু হাশিম মাহমুদকে চেনেন খুব কম মানুষ। ‘সাদা কালা’ গানটিতে মূলত ফুটে উঠেছে শিল্পীর অপ্রকাশিত প্রেম আর আক্ষেপের কথা। হাশিম মাহমুদ একবার কুষ্টিয়ার লালনের মাজারে যান। সেখানে গিয়ে তিনি এক নারীর প্রেমে পড়েছিলেন। শ্যাম বর্ণের সেই নারীকে নিজের ভালোবাসার কথা বলতে পারেননি হাশিম মাহমুদ । সেখান থেকেই না বলা প্রেমের দুঃখ থেকে তিনি লেখেন ‘তুমি বন্ধু কালা পাখি, আমি যেন কী; বসন্ত কালে তোমায় বলতে পারিনি’- লাইনগুলো।

Comments are closed here.

error: দয়া করে কপি করবেন না !!